প্রায় সাত মাস বন্দী থাকার পর জামিনে মুক্তি পেলেন জাফর পানাহি 


  • February 4, 2023
  • (0 Comments)
  • 435 Views

গ্রাউন্ডজিরো রিপোর্ট

 

গতবছর জুলাই মাসে ইরানের দুই চলচ্চিত্র পরিচালককে ইরান সরকারের কার্যকলাপের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার “শাস্তি” হিসেবে গ্রেফতার করা হয়। তারই প্রতিবাদে সামিল হন জাফর পানাহি এবং তাঁকেও গ্রেফতার করা হয়। এরপর অক্টোবর মাসে ইরানের সুপ্রিম কোর্ট ছয় বছরের জন্য তাঁর কারাবাস ঘোষণা করে। এই শুক্রবার অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন পানাহি। মুক্তি পাওয়ার দু’দিন আগে থেকেই তিনি আমরণ অনশন শুরু করেছিলেন।

 

গতবছরই ইরান সরকারকে ফাঁকি দিয়ে তাঁর নতুন ছবি “নো বিয়ারস” (No Bears) বাইরে আসে এবং প্রদর্শিত হয় বিশ্বের বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে। জাফর পানাহির পূর্বের অনেক ছবির মতোই এই ছবিটিও সমাদৃত হয়েছে সর্বত্র। গত বুধবার থেকে ইরান সরকারের অমানবিক এবং আইন-বহির্ভূত কার্যকলাপের প্রতিবাদে জাফর পানাহি তেহরানে জেলে বন্দী থাকা অবস্থায় খাবার এবং ওষুধ প্রত্যাখ্যান করে আমরণ অনশন শুরু করেছিলেন। জাফর পানাহির এই মুক্তি যদিও সাময়িক। আগামী মার্চ মাসে তাঁর কেসটি পুনরায় বিবেচনা করা হবে।

 

ইরান সরকারের অনৈতিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে বারবার তিনি প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন। তার ঝলক দেখা গিয়েছে তাঁর ছবিতেও। মাহসা আমিনির হত্যাকাণ্ডের পরে গোটা ইরান উত্তাল হয়ে উঠেছে। প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মেয়েরা। তাদের সঙ্গে জোট বেধেছেন চিত্র পরিচালক, ফুটবলার সহ বিভিন্ন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত মানুষেরা। অন্ততপক্ষে ৫০০ জনের উপর মানুষকে প্রতিবাদ করার জন্য হত্যা করেছে ইরান রাষ্ট্র। ১৯০০০ এরও বেশি মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বন্ধ দরজায় এক তরফা “হিয়ারিং” করিয়ে কাউকে মৃত্যুদণ্ড আবার কাউকে যাবৎজীবন কারাদণ্ড দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে ইরানের মানবাধিকার সংগঠনগুলি। গোটা বিশ্বের চোখ এখন ইরানের দিকে, আন্দোলনরত মেয়েদের দিকে, জাফর পানাহির দিকে।

 

Share this
Leave a Comment