গাজায় প্রতিবাদী প্যালেস্তাইনি জনতার উপর ইজরায়েলি আর্মি‌র “দুঃসহ ও অমানবিক” আক্রমণ

0
365
Image: courtesy: http://mondoweiss.net/

ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস/Médecins Sans Frontières (MSF), যার সদস্যরা গাজায় গিয়েছেন আহতদের চিকিৎসা করতে, প্যালেস্তাইনের অধিকৃত এলাকায় (অকুপায়েড প্যালেস্তাইন টেরিটোরি) তার আঞ্চলিক প্রতিনিধি মেরি-এলিজাবেথ ইংগ্রেস ১৪-ই মে নিম্নলিখিত বিবৃতি দিয়েছেন:

আজ যা ঘটেছে, তা দুঃসহ ও অমানবিক। গাজা হেলথ অথরিটি থেকে আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত যে মারাত্মক হিসাব পেশ করা হয়েছে, তা অনুযায়ী ৫৫ জন মৃত, ২২৭১ জন আহত, যার মধ্যে ১৩৫৯ জনের আঘাত লাইভ অ্যামুনিশন-জনিত। এইভাবে এত অল্প সময়ের মধ্যে এত নিরস্ত্র মানুষের গণহত্যার সাক্ষ্য সহ্যের অতীত।

আমাদের মেডিকাল টীম ১’লা এপ্রিল থেকেই ঘড়ির কাঁটার মতো কাজ করে চলেছে, পুরুষ, নারী ও শিশুদের সার্জি‌কাল ও পোস্ট-অপারেটিভ কেয়ার দিয়ে, এবং এটা তারা করে যাবে আজ রাত, কাল, এবং যতদিন এর প্রয়োজন থাকবে, ততদিনই। যে সব হাসপাতালে তারা কাজ করছে, তার একটায় যে টালমাটাল অবস্থা, তা ২০১৪-র যুদ্ধপরবর্তী বোমাবাজির পরের অবস্থার সাথে তুলনীয় — মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এক অভাবনীয় সংখ্যক আহত মানুষের ভীড় স্বাস্থ্যকর্মীদের বিহবল করে দিয়েছে। আজকের এই একদিনের মধ্যেই আমাদের টীমকে ৩০টির-ও বেশি সার্জি‌কাল ইন্টারভেনশন করতে হয়েছে — কোনো কোনো সময় একই অপারেশন টেবিলে ২/৩-জনের অপারেশন করতে হয়েছে, এমনকি হাসপাতালের করিডোরেও অপারেশন করতে হয়েছে।

এই রক্তস্নান গত সাত সপ্তাহ ধরে ইজরায়েলি আর্মির যে নীতি, তারই ধারাবাহিকতাকে সূচিত করে: প্রতিবাদ প্রদর্শ‌নকারী জনতার উপর লাইভ অ্যামুনিশন চালানো হচ্ছে এই ধরে নিয়ে, যে গাজার ‘সেপারেশন ফেন্স’-এর দিকে কেউ পা বাড়াচ্ছে মানেই তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো যায়। এঁদের মধ্যে বেশিরভাগেরই আঘাত এতটাই সাঙ্ঘাতিক, যা সারাজীবনের জন্য এঁদের পঙ্গু করে দেবে।

এই বিবৃতির ইংরিজি থেকে বাংলায় অনুবাদ করেছে গ্রাউন্ডজিরো টীম। The statement has been translated from English into Bengali by GroundXero Team.
Share this

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY